নাম ফাহিম বিশ্বাস। ডাক নাম ফাহিম।  ক্রিকেটে তিনি ঢাকা জেলার অনুর্ধ্ব-১৬ এর অধিনায়ক হিসেবে ছিলেন । শুধু তাই নয় বর্তমানে তিনি সুশিক্ষার প্লাটফর্মড্রিম ডিভাইজার’- এ স্পোর্টস ম্যানেজার এবং ইনোভেশন টিম এর দায়িত্ব পালন করছেন। ক্রিকেটকে নিয়েছেন নিজের স্বপ্নপূরণের সাথী হিসেবে। স্বপ্ন দেখেন আকাশচুম্বী। স্বপ্নবাজ এই ক্রিকেটারের সাক্ষাৎকার নিয়েছেন ‘বিএমটিআই নিউজ’ এর স্টাফ রিপোর্টার আব্দুল্লাহ আল মামুন



 



কেমন খেলছেন ওহ! কেমন আছেন ?

হাহাহা, ভালো খেলছি এবং ভালো আছি।



বর্তমানে কি পড়ছেন ?

আসলে প্রাণের বইমেলা চলছে, তো বইমেলা থেকে কেনা  কিছু বই পড়ছি।



পড়াশোনার পাশাপাশি কি করছেন ?

পড়াশোনার পাশাপাশি ক্রিকেট খেলছি, আর ড্রিম ডিভাইজারের ইনোভেশন টিমে আছি।



ছোটবেলার মজার কোন গল্প-

ছোটবেলায় আমার খেলার খুব নেশা ছিল। একবার পড়া বাদ দিয়ে খেলতে চলে গিয়েছিলাম বাড়ি থেকে অনেক দূরে। আর বাড়ির সবাই তো খুঁজে অস্থির। এরপর রাতে যখন বাড়ি আসলাম, জমপেশ একটা মার খেলাম।



আপনি তো খেলোয়ার খেলা নিয়ে কিছু বলেন-

আমি এখন জেলা টিমে আছি এবং খেলছি। দোয়া করবেন যাতে আরো ভালো খেলতে পারি।



খেলার জগতে আপনার আইডল কে ?

খেলার জগতে আমার আইডল সাকিব আল হাসান। উনি আমার মাগুরা জেলার। তাছাড়াও তিনি বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার।



নিজেকে খেলার জগতে কোথায় দেখতে চান-

অবশ্যই স্বপ্ন দেখি জাতীয় দলে খেলার। 



ড্রিম ডিভাইজারে প্রতি মাসে খেলাধুলা হয়ে থাকে এ সম্পর্কে কিছু বলেন-

প্রতি মাসের প্রথম সপ্তাহে আমরা খেলে থাকি। কারন আমাদের ড্রিম ডিভাইজারের সকল টিমমেটদের শরীর, মন, স্বাস্থ্যকে উৎফুল্ল করার জন্য আমরা খেলে থাকি। এ খেলায় সকলেই আমন্ত্রিত।



নিজেকে একজন দক্ষ খেলোয়ার হিসেবে গড়ার জন্য আপনি কি করছেন ?

প্রতিনিয়ত অনুশীলন করছি। অনুশীলনের বিকল্প আসলে কিছু নেই। অনুশীলনের সাথে কঠোর পরিশ্রম করছি ভালো কিছু করার।



ড্রিম ডিভাইজারে আপনার ইনোভেশন টিম নিয়ে কিছু বলেন-

আমরা প্রতিনিয়ত ড্রিম ডিভাইজারকে সহ পুরো মানুষকে ভালো কিছু দেওয়ার চেষ্টা করছি। আমরা আসলে কথায় না, কাজে বিশ্বাসী। 



ড্রিম ডিভাইজারে যুক্ত হয়ে আপনার কোন পরিবর্তন-

সত্যি কথা বলতে কি আমি আসলে কখনো মানুষের সামনে কথা বলতে পারতাম না। ভয় পেতাম। কিন্তু ড্রিম ডিভাইজারে আসার পর আমার এ ভয় কেটে গেছে। এখন আমি ১০০০ মানুষের সামনেও কথা বলতে পারি। 



ভবিষ্যতে ড্রিম ডিভাইজারকে কোথায় দেখতে চান-

ড্রিম ডিভাইজারকে বিশ্বের সেরা সুশিক্ষার প্লাটফর্ম হিসেবে দেখতে চাই।



একজন ব্যক্তির জীবনে শৃঙ্খলা কতটা গুরুত্বপূর্ণ বলে মনে করেন-

শৃঙ্খলা প্রত্যেক মানুষের জন্য অনেক গুরুত্বপূর্ণ।কেননা সুশৃঙ্খলভাবে জীবন পরিচালনা করতে না পারলে জীবনে সাফল্য পাওয়া যায় না। শৃঙ্খলার একটা উদাহরণ হতে পারে আমাদের ড্রিম ডিভাইজার।

ছিলেন 



ধন্যবাদ আপনাকে-

আপনাকেও আমার এবং ড্রিম ডিভাইজারের পক্ষ থেকে অনেক ধন্যবাদ ।


আপনার মন্তব্য
এই বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
২০ জানুয়ারি ২০১৮
বিত্রমটি আই নিউজ ডেস্ক
একটা নদী উপহার পেয়েছি রটনার মত ছড়িয়ে যাচ্ছে , গুজব না সত্যি ! আমার একটা নদী আছে যদিও আমি নদী চাইনি চেয়েছি চাঁদ , তবু নদীই পেলাম বিস্তারিত
২০ জানুয়ারি ২০১৮
বিত্রমটি আই নিউজ ডেস্ক
আশুলিয়ার নিশ্চিন্তপুর গ্রামের এক গৃহবধু দেবর ও ভাশুরের নির্যাতন, হয়রানিমূলক মামলাসহ বিভিন্ন কুৎসার হাত থেকে নিজের পরিবারের সদস্যদের বাঁচাতে সংবাদ সম্মেলন বিস্তারিত
২০ জানুয়ারি ২০১৮
বিত্রমটি আই নিউজ ডেস্ক
ড্রিম ডিভাইজারের নিজস্ব উদ্ভাবিত স্বপ্ন- সুশিক্ষা- সুযোগ মডেলে সুশিক্ষায় স্বপ্নবুননে সবাইকে উদ্বুদ্ধ করে। সুশিক্ষায় স্বপ্নবুননে বিশেষ আয়োজন হচ্ছে স্বপ্ন-আড্ডা। স্বপ্ন আড্ডার বিস্তারিত
© স্বত্ব বিএমটিআইনিউজ ২০১৫ - ২০১৭
সম্পাদক :
মিঞা মুজিবুর রহমান
নির্বাহী সম্পাদক : শাহআলম শুভ
৩৭৩,দিলু রোড (তৃতীয় তলা)মগবাজার, ঢাকা-১২১৭
ফোন: ০২৯৩৪৯৩৭৩, ০১৯৩৫ ২২৬০৯৮
ইমেইল:bmtinews@gamil.com