অর্থনৈতিক প্রতিবেদক: 



যুক্তরাষ্ট্রের নির্বাচনে রিপাবলিকান দলের  প্রার্থী ডোনাল্ড ট্রাম্পের বিজয়ে এশিয়ার শেয়ারবাজারে ধস নেমেছে। জাপানের টোকিওতে এমএসসিআই সূচকের পতন হয়েছে ১৩৫.০৭ পয়েন্টের। শতকরা হিসাবে এ পতনের হার ২ শতাংশ। ২৪ জুনের পর এটিই একদিনে সূচকের সর্বোচ্চ পতন। ২৪ জুন ইউরোপীয় ইউনিয়ন থেকে ব্রিটেনের বেরিয়ে যাওয়ার বিষয়ে গণভোটের রায় প্রকাশিত হওয়ার পর সূচকের বড় ধরনের পতন হয়েছিল। ব্রেক্সিটের ঘটনায় শেয়ারবাজারে বড় ধরনের ধাক্কা লেগেছিল। ট্রাম্পের বিজয়ের কারণে বাজারে বড় ধরনের নেতিবাচক প্রভাব পড়েছে বলে বিশ্লেষকরা মনে করছেন।

গতকাল বুধবার  দিনের শুরুতে ভোট গণনায় ফ্লোরিডার ২৯টি ইলেকটোরাল ভোট ট্রাম্প পেতে পারেন-এমন আভাস পাওয়ার পর থেকেই বাজারে বড় ধরনের অস্থিরতা দেখা দেয়। জাপানের টপিক্স সূচকের পতন হয়েছে ৩.৭ শতাংশ। দক্ষিণ কোরিয়ার কসপাই সূচকের পতন হয়েছে ২.৪ শতাংশ। এছাড়া নিউজল্যান্ডের এনজেডএক্স-৫০ সূচকের ৩.৩ শতাংশ এবং অস্ট্রেলিয়ার এএসএক্স-২০০ সূচকের ২ শতাংশ, সিঙ্গাপুরের স্ট্রেইটস টাইমস সূচকের ১.২ শতাংশ, হংকংয়ের হান সেন সূচকের ২.৮ শতাংশ, চীনের সাংহাই কম্পোজিট সূচকের পতন হয়েছে ২.১ শতাংশ। মার্ক ম্যাথিউস নামে একজন বাজার গবেষক বলেন, ট্রাম্পের বিজয়ের বিষয়ে বাজার প্রস্তুত ছিল না। ব্রিটেনের ইউরোপীয় ইউনিয়ন থেকে বের হয়ে যাওয়ার বিষয়ে গণভোটে যেমনটি ঘটেছিল।  ট্রাম্পের বিজয়ের আশংঙ্কা থেকে গতকাল ঢাকার বাজারে  কিছুটা পতন ঘটেছে। তবে তা দীর্ঘ স্থায়ী বা বড় পতন নয়। কেননা এশিয়া তথা বিশ্ববাজারের সাথে আমাদের পুঁজিবাজারের কোন সংশ্লিষ্টতা  নেই। বিগত গ্রিস অর্থনৈতিক মন্দ, বেক্সিট ও বিশ্বব্যাপি তেলের দাম কমে যাওয়ার ফলে বিশ্ববাজারে পতন হলেও তার প্রভাব পড়েনি আমাদের দেশে। সেই অভিজ্ঞতার আলোকে আমাদের বিনিয়োগকারীদের কোন প্রকার গুজবে কান না দিয়ে দেখে শুনে বিনিয়োগের পরামর্শ দিয়েছেন বাজার বিশ্লেষকরা। বাজার বিশ্লষণে দেখা গেছে, সপ্তাহের চতুর্থ কার্যদিবসে দেশের উভয় শেয়ারবাজারে সূচকের নিম্নমুখী প্রবণতায় চলছে লেনদেন। এদিন ডিএসইতে ৩২২টি  কোম্পানির  শেয়ার ও ইউনিটের লেনদেন হয়েছে। এর মধ্যে ৮৭টি বা ২৭ শতাংশ কোম্পানির শেয়ার ও ইউনিটের দর বেড়েছে, ১৯১টি বা ৫৯ শতাংশ কোম্পানির দর কমেছে এবং ৪৪টি বা ১৪ শতাংশ কোম্পানির দর অপরিবর্তিত রয়েছে।

গতকাল ডিএসইর প্রধান সূচক ডিএসইএক্স ১৯.৮১ পয়েন্ট কমে ৪৬৭১.২৬ পয়েন্টে দাঁড়িয়েছে। এর আগে মঙ্গলবার ১.৮৮ পয়েন্ট বেড়েছিল। এদিন ডিএসইতে ৫৫৪ কোটি ৯৬ লাখ টাকার শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়েছে। যার পরিমাণ আগের দিন ছিল ৬৪৩ কোটি ৭০ লাখ টাকা। টাকার অঙ্কে ডিএসইতে সবচেয়ে বেশি লেনদেন হয়েছে স্কয়ার ফার্মাসিটিক্যালসের শেয়ার। কোম্পানিটির ২৪ কোটি ৬৭ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। লেনদেনে দ্বিতীয় স্থানে থাকা ওরিয়ন ইনফিউশনের ২৩ কোটি ৩৮ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। ১৮ কোটি ৮২ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেনে তৃতীয় স্থানে রয়েছে কনফিডেন্স সিমেন্ট। লেনদেনে এরপর রয়েছে- শাশাঁ ডেনিমস, বিএসআরএম লিমিটেড, শাহজিবাজার পাওয়ার, ফরচুন সুজ, গোল্ডেন হার্ভেষ্ট এগ্রো ইন্ডাষ্ট্রিজ, পাওয়ার গ্রীড ও পেনিনসুলা চিটাগাং।

এদিকে গতকাল সিএসই’র সিএসসিএক্স সূচক ২৩.৮৩ পয়েন্ট কমে দাঁড়িয়েছে ৮৭৪১.৬৯ পয়েন্টে। এর আগে মঙ্গলবার ১৫.৪৩ পয়েন্ট, সোমবার ১৮.০১ পয়েন্ট, রবিবার ৭.৬৩ পয়েন্ট ও আগের সপ্তাহের বৃহস্পতিবার ৭৬.৯১ পয়েন্ট, বুধবার ৪৭.৫৩ পয়েন্ট এবং মঙ্গলবার ২.৯৬ পয়েন্ট বেড়েছিল। এদিন সিএসইতে ৪১ কোটি ১৫ লাখ টাকার শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়েছে। যার পরিমাণ আগের দিন ছিল ৩৭ কোটি ২০ লাখ টাকা। সিএসইতে লেনদেন হওয়া ২৩৭টি ইস্যুর মধ্যে দর বেড়েছে ৬৪টি’র, কমেছে ১৪২টি’র এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ৩১ টি’র।



বিএমটিঅাইনিউজ/ এস অালম 

আপনার মন্তব্য
এই বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
১৮ জানুয়ারি ২০১৮
বিত্রমটি আই নিউজ ডেস্ক
‘মানুষ অভ্যাসের দাস’- প্রবাদ-প্রবচনটি আমরা বাংলা ব্যাকরণে পড়েছি। কিন্তু অভ্যাস যখন উল্টো মানুষের কর্মচারী হয়, তখন কতো অবাক লাগে তাই বিস্তারিত
০২ জানুয়ারি ২০১৮
বিত্রমটি আই নিউজ ডেস্ক
ভালো আছি! চশমাটা এই নিয়ে তিনবার ভাঙলো,তাও ভালো ফ্রেম, তাপ্তি দেওয়া যায়,যদি কাঁচ হতো ! শীতে একটা সোয়েটারের খুব দরকার,না থাক! এখন বিস্তারিত
৩০ ডিসেম্বর ২০১৭
বিত্রমটি আই নিউজ ডেস্ক
উৎসবমুখর পরিবেশে ১৯ বছর পর জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে অনুষ্ঠিত হচ্ছে সিনেট রেজিস্টার্ড গ্র্যাজুয়েট প্রতিনিধি নির্বাচন-২০১৭। মোট ২টি কেন্দ্রে ১১৪টি বুথে সকাল বিস্তারিত
© স্বত্ব বিএমটিআইনিউজ ২০১৫ - ২০১৭
সম্পাদক :
মিঞা মুজিবুর রহমান
নির্বাহী সম্পাদক : শাহআলম শুভ
৩৭৩,দিলু রোড (তৃতীয় তলা)মগবাজার, ঢাকা-১২১৭
ফোন: ০২৯৩৪৯৩৭৩, ০১৯৩৫ ২২৬০৯৮
ইমেইল:bmtinews@gamil.com